Saree idea for engagement

এনগেজমেন্ট এর পোশাকঃ যা দেখে আপনার হবু বরের কাছেও ভীষন আকর্ষনীয় হয়ে উঠবেন

আসছে বিয়ের মৌসুম, বিয়ের পোশাক বাছাইয়ের মত বিয়ের পুর্ব বর্তী অনুষ্ঠান গুলোর ও পোশাক বা সাজ সজ্জা বেঁছে নেয়ার ক্ষেত্রে অনেক সময় কনফিউজিং থাকতে হয়।
বিয়ের আগে র যত প্রোগ্রাম হয় তার মধ্যে সবচেয়ে গুরত্বপূর্ন এঙ্গেজমেন্ট এর অনুষ্ঠান।

এঙ্গেজমেন্টের দিন নির্ধারিত হয় মুলত বিয়ের দিনের বেশ কিছুদিন আগে বা কয়েক মাস আগে। এই শুভ দিন টিকে বর ও কনের এবং তাদের সাথে দুই পরিবারের প্রথম আনুষ্ঠানিক সাক্ষাত হিসেবে চিহ্নিত করা হয়।

ইন্ডিয়ান সংস্কৃতিতে এঙ্গেজমেন্ট বা সাগাই কে আনুষ্ঠানিক ভাবে বিয়ের চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত বা আশীর্বাদের দিন হিসেবে ধার্য করা হয়।
এই দিনে রিং আদান প্রদানের মাধ্যমে একে অন্যকে বরন করে নেয় তাই একে অনেক সময় রিং অনুষ্ঠান ও বলা হয়।

এনগেজমেন্ট সেরেমনির দিন বিয়ের কনে যেহেতু প্রথম বারের মত বর এর সাথে তথা তার হবু শ্বশুরবাড়ির পরিবারের সাথে সাক্ষাত করে, সেহেতু এই দিনে কনের সাজে কোনো অপূর্নতা থাকলে চলবেনা।

collected


কনের এংগেজমেন্ট এর লুক হওয়া চাই পরিপূর্ন। তবে খেয়াল রাখা দরকার মুল বিয়ের দিনের সাজ পোশাকের চেয়ে এঙ্গেজমেন্ট এর সাজ বা পোশাক হবে কিছুটা হাল্কা বা অনুচ্চকিত।
এর জন্য এই উৎসবের কনের পোশাক , সাজ, অর্নামেন্ট এর দিকে বিশেষ খেয়াল রাখা দরকার।
এঙ্গেজমেন্ট এ আসলে আপনি যেকোনো ভাবে এক্সপেরিমেন্ট করতে পারেন যেটা বিয়ের দিনে সম্ভব হয়না। ট্র্যাডিশনাল বা মর্ডান, ক্ল্যাসি বা গর্জিয়াস, যেকোনো ভাবে নিজেকে সাজিয়ে তুলুন।
আসলে অনেক দ্বিধা দ্বন্দ্বে পড়ে যেতে হয় অনেকের কি উপায়ে সাজলে ভালো হবে, আমি আজ এই বিষয়ে সহযোগীতা করতে এসেছি।

এনগেজমেন্ট এর পোশাক আর সাজঃ
**আপনার বিয়ের প্রথম অনুষ্ঠান এটি। তাই আপনি খুব সচেতন থাকবেন সাজের ক্ষেত্রে। এই অনুষ্ঠানে সবাই ই চাই একটু বিশেষ লুক নিতে যা দারুন গর্জিয়াস ও হতে হবে সাথে স্নিগ্ধ ও। প্রথমত আপনাকে খেয়াল রাখতে হবে আপনার সঙ্গী এদিন কি পরছেন। হ্যা ঠিক ই শুনেছেন, আপনার নিজের সাজ এর আইডিয়া নেবার আগে, প্রথমেই শুনে নিন তার প্ল্যান। তার পোশাক কি হবে বা রঙ ই বা কি হবে, কারন আপনার পার্টনারের সাথে কন্ট্রাস্ট বা মিলিয়ে আপনি যদি সাজ নেন তাহলে দুজন কে দারুন ভাবে মানাবে সেদিন।


যদি তিনি সেদিনের জন্য ব্লেজার, স্যুট বা এরকম কিছু বেঁছে নেন, তবে আপনি ফ্লাপি গাউন বা ল্যাহেঙ্গা বেঁছে নিতে পারেন এবং অবশ্যই সেই ল্যাহেঙ্গার নিচের দিকে এমব্রয়ডারি বা সিকোয়েন্স এর কাজ করা থাকবে এবং সুন্দর রঙ যেন হয় সেদিকেও লক্ষ্য রাখবেন।



যদি আপনার সঙ্গী পায়জামা পাঞ্জাবি বা শেরোয়ানি টাইপ কিছু বেঁছে নেন, তবে অবশ্যই শাড়ি পরবেন । সেটা কাতান বা জামদানি যেকোনো টাতেই ভালো লাগবে।

**আপনি যদি চান আপনার এনগেজমেন্ট এর সাজ হবে খুব সিম্পল কিন্তু তবুও একেবারে পারফেক্ট, তাহলে আপনি এই অকেশনের জন্য বেঁছে নিতে পারেন হাল্কা মিনিমাল লুক এর একটি সফট কালারের জামদানি বা কাতান সাথে রুপার গলার আর কানের দুল , চাইলে মাথায় খোপাতে তাজা ফুল গুজে দিতে পারেন।


**গর্জিয়াস অথচ লাইট অয়েট সিল্ক বা জামদানি শাড়ির সঙ্গে, একটু ভারি ইয়ার রিং, আর ভারি চুড়ি তে হয়ে যাবে অসাধারণ সাজ। এরকম সাজে চুল খোলা রেখে বা নিচু করে আলগা খোপা,ব্যস আপনি তোইরি আপনার অনুষ্ঠানের জন্য।


**এনগেজমেন্ট এর অনুষ্ঠানে মিনিমাল লুক চাইলে, একটি বেজ রঙের বা পিচ রঙের সেলফ নক্শার জামদানি বা লেহেঙ্গা বেঁছে নিন, সাথে সবুজ টপ, আর হাইলাইটেড বর্ডারের ফিনফিনে নেটের ওড়না বা জামদানির ওড়নায় হয়ে উঠুন অনন্যা!!!


**এনগেজমেন্টের মত যেকোনো বিয়ে পূর্ব বর্তী অনুষ্ঠানের জন্য ভারি সাজ চাইলে এই সাজ খুব এলিগ্যান্ট। পার্সিয়ান ব্লু রঙের শাড়ির সাথে গ্রীন কন্টড়াস্টিং ডিজাইনার ব্লাউজ নিয়ে আসবে আভিজাত্যের ছোঁয়া , সাথে সবুজ বা নীল এর ওড়নাও নিতে পারেন।
সিম্পল কোমরের বিছা বা কোমরবন্ধ আর ছোট্ট ইয়ার রিং এ আপনার সাজ সম্পুর্ন।



**এলিগ্যান্ট লুক চাইলে একটি মেরুন বা জাম রঙের ল্যাহেঙ্গার সঙ্গে বেইজ বা ব্রাউন চোলি বা টপ, সাথে মিলিয়ে দোপাট্টা বা ওড়না এনে দিতে পারে ট্র্যাডিশনাল এলিগ্যান্ট লুক।



আরো বেশি জমকালো সাজ চাইলে অলভার কাজ করা মিন্ট বা ব্রাউন রঙের লেহেঙ্গা পড়ে নিতে পারেন।


** খুব ট্র্যাডিশনাল লুক থেকে বেড়িয়ে আসতে চাইলে নানান ধরনের গাউন এখন পাওয়া যায়, ভারি কাজের বা সিম্পল, যেকোনো টি বেঁছে নিন আপনার পছন্দ মত, ঘের বেশি বা কম, সব রকমেই এখন এনগেজমেন্ট এর অনুষ্ঠানের জন্য চলছে।

খুব আনকমন লুক চাইলে শাড়ির সাথে লং জ্যাকেট টাইপ টপ্স দিয়ে সাজুন, ভীষন ভালো লাগবে।

লেখাটি আপনাদের কারো ভালো লাগ্লে শেয়ার করে দিতে ভুলবেন না 🙂






Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top
0 Shares
Tweet
Share
Pin
Share