ডিফারেন্ট লুক চাইলে জামার কলারে আনুন বৈচিত্র

যারা রেডিমেড কুর্তি বা ফতুয়া টাইপ জামা পছন্দ করেন তারা হয়তো মন মত জামার কলার পান না, জামা পছন্দ হলেই তখন বাধ্য হয়ে কিনে ফেলছেন, অনেকেই খুব চান নিজে ডিজাইন দিয়ে জামার গলা বানাবেন।

কারন জামার গলার ভিন্নতাই আপনার পুরো সাজের দারুন বৈচিত্র এনে দেবে।
নিজের মত করে তাই জামার গলার ডিজাইন দিয়ে বানান অনেকেই। তারা প্রশংসা কুড়াচ্ছেন সবার। আজকে আমি কিছু জামার কলারের বা জামার গলার কাটিং এর বোইচিত্রময় নকশা শেয়ার করব, বেঁছে নিতে পারেন আপনার পছন্দ সই একেক জামার সাথে একেক্টি ডিজাইন আর হয়ে উঠুন যেকোনো অনুষ্ঠানে সবার মধ্যমনি।

সাইড শার্ট কলারঃ

ঠিক বরাবর শার্ট এর কলার স্টাইল না, তবে শার্ট এর কলার এক সাইডে দিয়ে এই কলার টা হবে। একেবারে মিডল এ কলার যাদের অস্বস্তি তারা এটা ট্রাই করতে পারেন। যে সাইডে কলার থাকবে তার অন্য হাতে একটা রিস্ট অয়াচ পড়ে নিন। ফিট প্যান্টস, ল্যাগিংস বা জেগিংস এর সাথে দারুন মানিয়ে যায় এই কলারটি

ম্যান্ডারিন কলারঃ

জামার গলার স্টাইলের মধ্যে সবচেয়ে পুরোনো আর আভিজাত্যিক যে কাট টা সেটা এই ম্যান্ডারিন কলার স্টাইল। এটি এসেছে মুলত চীনা রাজ পরিবার এর মহিলাদের থেকে। রাজপরিবারের মহিলারা ম্যান্ডারিন কলারের গাওন পরতেন। নেক লাইন এরিয়া থেকে এই কলার শুরু হয়। এই কলার স্টাইলের কুর্তা বা জামার আলাদা একটা আভিজাত্যিক ভাব আছে। লেগিংস, পালাজ্জো, ধুতি, চুড়িদার যেকোনো প্যান্টের সাথেই দারুন ভালো লাগে।

Collected
Collected

কাফতান কলার:

কাফতানে সাধারণত যে স্টাইলের নেক ডিজাইন হয়, এই কলারটিও সে রকম ই। কাফতান স্টাইল এর কলারটি অন্য জামার কলার হিসেবেও বেশ চমৎকার ভাবে মানিয়ে যায়। এই কলারটিকে অনেক সময় সিউডো কলার ও বলা হয়ে থাকে। এই স্তাইলের জামার কলারের সাথে ল্যাগিংস বা জিন্স, অথবা চুড়িদার প্যান্ট এর সাথে চমৎকার মানিয়ে যায়।

শার্ট কলারঃ

নাম শুনেই বোঝা যায় এই ধরনের কলার স্টাইল শুধুমাত্র শার্টের কলারে দেখা যায়। এখন জামা বা কুর্তা বা পাঞ্জাবির সাথেও এই স্টাইলের নেক ডিজাইন খুব চলছে। অফিসে বা কলেজে অনায়াসেই এই স্টাইলের কলার দিয়ে জামা পরতে পারেন, একটু বস মার্কা লুক চাইলেও এই কলার নেক জামা ট্রাই করতে পারেন। এর সঙ্গে ল্যাগিংস, জিন্স, বা অন্যান্য যেকোনো সালোয়ার ও ট্রাই করতে পারেন, বিয়ে বা যেকোনো অনুষ্ঠানেও এই নেক ডিজাইনের কলার দিয়ে জামা পড়ে ওড়না নিতে পারেন। সাথে হাল্কা মেকআপ আর স্মোকি আই মেক আপ নিয়ে দারুন গর্জিয়াস হয়ে যান ।

Pintarest

টার্টল নেক স্টাইল কলার:

এই কলারটি সোয়েটার বা কার্ডিগানের ক্ষেত্রে ব্যাবহার করা হত, এখন জামাতেও এই কলারটি বেশ চলছে। খুব দারুন একটা আভিজাত্যিক লুক আসে এই কলার এর ডিজাইনের জামাতে। আপনি সহজেই এটি জামা বা কুর্তায় এই গলার নকশা দিয়ে বানাতে পারেন, কারন ইউরোপীয় এই স্টাইলের নেক ডিজাইন জামার মাধ্যমেই ইন্ডিয়ান ফ্যাশনে প্রবেশ করেছে।
চুড়িদার বা স্ট্রেইট প্যান্ট এর সাথে এই নকশার গলার জামা দিয়ে বেশি ভালো লাগবে।
তবে এই স্কলার দিয়ে জামা পরলে ভুল করেও হেভি জুয়েলারি পরতে যাবেন না।

Pintarest

এছাড়াও আরো অনেক ধরনের স্টাইলিশ কলার এখন বেশ চলছে, আমার যে ক’টি ভালো লেগেছে আমি শেয়ার করছি, আশা করছি সবার কাজে লাগবে।

চেষ্টা করেছি আপনাদের জামার কলার নিয়ে চিন্তা খানিক্টা হলেও দূর করতে। ভালো লাগ্লে শেয়ার করতে ভুলবেন না।



Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top
0 Shares
Tweet
Share
Pin
Share